ঢাকা | বৃহস্পতিবার | ২৩ মে ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯:৪৫ পূর্বাহ্ণ
খেলাধুলাহুমকি দেওয়া হয়েছিল তামিমকে?

হুমকি দেওয়া হয়েছিল তামিমকে?

spot_img

তামিম ইকবাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরবেন কিনা, সেটা নিয়ে ধোঁয়াশা কাটেনি এখনও। বিপিএলে তামিম ফরচুন বরিশালকে চ্যাম্পিয়ন করার সঙ্গে ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক হওয়ায়, ফেরার আলোচনায় আরও হাওয়া লেগেছে।

বিপিএল ফাইনালের দিন সংবাদ সম্মেলনে এসে তামিম জানিয়েছিলেন, তার জাতীয় দলে ফেরা নির্ভর করছে অনেক কিছুর ওপর। অনেক কিছু ঠিকঠাক হলে তবেই তিনি ফিরবেন। সেই অনেক কিছু কী? এবার একটি বেসরকারি টিভির সঙ্গে সাক্ষাৎকারে তামিম যা বললেন, তাতে মোটামুটি পরিষ্কার-চন্ডিকা হাথুরুসিংহে কোচ থাকলে তিনি খেলবেন না।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরছেন কিনা? এমন প্রশ্নে তামিম বলেন, ‘জিনিসটা এমন করে দেখানো হচ্ছে যে, আমি এটা ঝুলিয়ে রেখেছি। এটা ঠিক না। আমার সাথে বিসিবির তিনবার বসা হয়ে গেছে এরই মধ্যে। পাপন ভাইয়ের সঙ্গে বসা হয়েছে, তদন্ত কমিটির সঙ্গে বসা হয়েছে। নিশ্চয়ই কোনো একটা বিষয় নিয়ে বসা হয়েছে।’

সে বিষয়টা কী? তামিমের উত্তর, ‘আমি আমার দিক থেকে একদম শুরু থেকেই ক্লিয়ার। এখানে নতুন করে কোনো কিছু আমার পক্ষ থেকে বলার আর নাই তাদের কাছে। উনারা আবার সঙ্গে বসতে চাচ্ছেন, যেহেতু আমি অনেক বছর খেলেছি আমার তাদেরকে সম্মানটা দেখাতে হবে। তবে আমি আবারও বসলে ওই একই কথা বলব।’

তাহলে কি অবসর নেওয়ার কথাই বলছেন? তামিম যদিও পরিষ্কার করে অবসরের কথাও বলেননি। তবে তিনি আকারে ইঙ্গিতে যা বলেছেন, সেটার মানে দাঁড়ায়-আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে না ফেরার সিদ্ধান্তই বোধ হয় নিয়ে ফেলেছেন দেশসেরা ওপেনার।

তামিম বলেন, ‘আমি যদি উনাদের (বোর্ড) বলে আসি যে আমি আর খেলব না অথবা আমি আর টিমের সাথে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট খেলতে চাই না…অনেক সময় অনেক কিছু মানুষের ইচ্ছায় বা টিমের থেকে যদি ওই ধরনের চাহিদা থাকে যে; টিমের যারা দায়িত্বে আছে তারা যদি কথা বলে, তবে অনেক সময় অনেক সিদ্ধান্ত পরিবর্তন হলেও হতে পারে। আবার নাও হতে পারে। আমি যেটা বললাম, আমার পক্ষ থেকে যেটা বলার ছিল পরিষ্কার বলেছি, একবার না তিনবার।’

শোনা যায়, চন্ডিকা হাথুরুসিংহের সিদ্ধান্তের কারণেই বিশ্বকাপের আগে সরে যেতে বাধ্য হয়েছিলেন তামিম। হাথুরু কোচ থাকলে তাই তার জন্য ফেরাও কঠিন।
তামিমও সেটা অস্বীকার করেননি। হাথুরুসিংহে কোচ থাকলে ফিরবেন কিনা? এমন প্রশ্নে তামিম বলেন, ‘আমার ফেরাটা খুব ডিফিকাল্ট আমি এটুক বলতে পারি।’

বিশ্বকাপের আগে আফগানিস্তান সিরিজ চলার সময় হঠাৎ অবসর। কেন এমন সিদ্ধান্ত? তামিম জানালেন, অনেক কিছু নিয়েই তিনি খুশি ছিলেন না। এমনকি হুমকিও পেয়েছিলেন।

তামিমের ভাষায়, ‘টিমের ম্যানেজম্যান্ট থেকে কয়েকবার আমাকে বলতে গেলে থ্রেটও (হুমকি) দেয়া হয়েছিল যে, এমন হলে আমরা অন্য ক্যাপ্টেন দেখব। অনেক কিছু নিয়েই আসলে খুব একটা খুশি ছিলাম না। অনেক কিছু হয়েছে যা আমি বলতে…আসলে এসব কিছুই ক্রিকেট বোর্ড জানে।’

হাথুরু থাকলে ফিরবেন না, তাকে ফেরাতে হলে তবে অনেক কিছু বদলাতে হবে। একজন ক্রিকেটার এমন শর্ত দিয়ে জাতীয় দলে খেলতে পারেন কিনা?

তামিমের জবাব, ‘একটা জিনিস ভুল। আমি বলেছি, আমাকে ফেরাতে হলে অনেক কিছু ঠিক হতে হবে। অনেক কিছু বদলাতে হবে আর অনেক কিছু ঠিক হতে হবে, দুটো কথার পার্থক্য আছে। আমাকে ফেরাতে হলে সব সিস্টেম চেঞ্জ করতে হবে, এই কথাটা আমি কোনোদিন বলব না।’

‘অনেক কিছু ঠিক হতে হবে। কারণ বিশ্বকাপের সময় বা বিশ্বকাপের আগে অনেক ঘটনাই হয়েছে, আমার মনে হয় এসব ঠিক ছিল না। আমি এমন কোনো দাবি করবও না, পুরো দলের সিস্টেম চেঞ্জ করা লাগবে। আমি বলেছি ঠিক হতে হবে, বদলাতে হবে তা বলিনি’-যোগ করেন তামিম।

spot_img

সম্পর্কিত আরো খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ খবর