ঢাকা | শুক্রবার | ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১০:৫৫ অপরাহ্ণ

‘জামায়াতকে অনুমতি নয়, বিএনপির বিষয়ে সিদ্ধান্ত ডিএমপির’

spot_img

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল জানিয়েছেন, রাজধানীতে ২৮ অক্টোবর জামায়াতে ইসলামীর ব‌্যানারে কোনো ধরনের সমাবেশ করার অনুমতি দেওয়া হবে না। বিএনপির সামবেশের অনুমতির বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার।

মহান বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে বুধবার (২৫ অক্টোবর) সচিবালয়ে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানিয়েছেন।

জামায়াতে ইসলামী ঢাকায় সমাবেশের অনুমতি পাবে কি না, জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, এখন পর্যন্ত জামায়াতে ইসলামী নিবন্ধিত দল নয়। কাজেই তারা জামায়াতে ইসলামীর ব্যানারে যদি আসে, তাহলে তাদের অনুমতি দেওয়ার প্রশ্নই আসে না।

আসাদুজ্জামান খান বলেন, ‘আমাদের দেশে অনেক দল, অনেক পথ, অনেক কিছু রয়েছে। জামায়াতে ইসলামী এর আগেও দু–এক জায়গায় আলোচনা করেছে। দেশের নিয়মকানুন মেনে, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নির্দেশনা মেনে যে কেউ যেকোনো কথা বলতে পারে। জামায়াত বলে কোনো কথা নেই, যে কেউ যেকোনো কথা বলতে পারে। এটা গণতান্ত্রিক দেশ, গণতান্ত্রিক চর্চা এখানে আছে। আমাদের কথা হলো, আমাদের যে আইনকানুন আছে, তার মধ্যে থেকে তাদের কথা বলতে হবে।’

ঢাকার কোথায় বিএনপিকে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হবে, সে সিদ্ধান্ত ডিএমপি কমিশনার নেবেন, জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, বিএনপি যদি শান্তিপূর্ণভাবে অবস্থান করে, ডিএমপি কমিশনার নিশ্চয়ই তাদের অনুমতি দেবেন।

‘আমি সব সময়ই বলি, সব রাজনৈতিক দলের অধিকার আছে তাদের গণতান্ত্রিক অধিকারের চর্চা করার। তাদের সবকিছু প্রচার-প্রচারণার নিয়মকানুন আছে। নিয়মবহির্ভূত কিছু করলে সেখানে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের মানা করবেন; বলবেন যে, আইন ভাঙছেন। কাজেই আমাদের কথা স্পষ্ট, তারা (বিএনপি) যদি কমিশনারের কাছে আবেদন করেন এবং তারা যদি বলেন, আমরা ভাঙচুর করব, অবরোধ করব, তাহলে তো কমিশনার সাহেব (অনুমতি) দেবেন না। আমি বলতে চেয়েছি, তারা যদি শান্তিপূর্ণভাবে যদি অবস্থান করে, আমাদের কমিশনার সাহেব নিশ্চয় তাদের অনুমতি দেবেন,’ যোগ করেন মন্ত্রী।

২৮ অক্টোবরকে ঘিরে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির শঙ্কা আছে কি না, জানতে চাইলে আসাদুজ্জামান খান বলেন, সরকার তো এমন একটা কিছু নয় যে, তাদের ধাক্কা দিল পড়ে গেল। গণতান্ত্রিক সরকার ভোটের মাধ্যমে এখানে এসেছে। তার যে মেয়াদ, সেই মেয়াদের পরে নির্বাচন হবে। তার পরেই সরকার পরিবর্তন হবে। সংবিধান অনুযায়ী, ধাক্কা দিলে সরকার পড়ে যাবে, এ ধরনের কোনো শব্দ লেখা নেই। সংবিধান রক্ষা করার দায়িত্ব আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর। সেই সংবিধানের ফ্রেমওয়ার্কের বাইরে যদি তারা (বিএনপি) কিছু করতে চেষ্টা করে, তাহলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের অর্পিত দায়িত্বটি পালন করবে।

জামায়াতে ইসলামী সমাবেশের অনুমতি চেয়েছে কি না, এ প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বিষয়টি নিয়ে কমিশনারকে (ডিএমপির কমিশনার) জিজ্ঞাসা করার পরামর্শ দেন।

বিএনপি ২৮ অক্টোবর ঢাকায় মহাসমাবেশের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে। এজন্য ঢাকা মহানগর পুলিশের কাছে আবেদনও করেছে দলটি। একই দিনে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের দক্ষিণ ফটকে শান্তি সমাবেশের ডাক দিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। বিএনপির মিত্র জামায়াত ঢাকার শাপলা চত্বরে সমাবেশ করতে চায়।

spot_img

সম্পর্কিত আরো খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ খবর