ঢাকা | বৃহস্পতিবার | ২৩ মে ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৯:১৪ পূর্বাহ্ণ
শিক্ষাএবার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাসও বন্ধ ঘোষণা

এবার জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাসও বন্ধ ঘোষণা

spot_img

তীব্র দাবদাহের কারণে পরবর্তী তারিখ ঘোষিত না হওয়া পর্যন্ত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজসমূহে ক্লাস বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন। পরবর্তী তারিখ ঘোষিত না হওয়া পর্যন্ত বন্ধ থাকবে ক্লাস।

শনিবার (২০ এপ্রিল) গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়।

এর আগে চলমান দাবদাহের কারণে প্রাথমিক থেকে কলেজ পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৭ দিনের ছুটি ঘোষণা করা হয়।

আজ দুপুরে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য অফিসার মাহবুবুর রহমান তুহিন বলেন, তীব্র গরমের কারণে ২১ থেকে ২৭ এপ্রিল পর্যন্ত সব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শিশুকল্যাণ ট্রাস্টের বিদ্যালয়সমূহ ও উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর লার্নিং সেন্টারগুলো বন্ধ থাকবে।

অপরদিকে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি) এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, সারা দেশের ওপর দিয়ে চলমান দাবদাহ ও আবহাওয়া দপ্তরের সতর্কতা জারির পরিপ্রেক্ষিতে মাউশি অধিদপ্তরের আওতাধীন সব সরকারি ও বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পূর্বনির্ধারিত ছুটি শেষে ২১ তারিখে খোলার পরিবর্তে আগামী ২৮ তারিখে যথারীতি খুলবে।

এর আগে সকালে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অ্যাসেম্বলি বন্ধের নির্দেশনা দিয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে মন্ত্রণালয়। এতে বলা হয়, দেশজুড়ে বহমান দাবদাহের ওপর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় তীক্ষ্ণ নজর রাখছে। পরিস্থিতি বিবেচনায় দেশের সব সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অ্যাসেম্বলি পরবর্তী নির্দেশনা দেওয়া না পর্যন্ত বন্ধ থাকবে।

শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি বাড়ানোর দাবি জানিয়ে অভিভাবক ঐক্য ফোরাম গণমাধ্যমে একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি পাঠায়।

তাতে বলা হয়, দেশে হিট অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। মানুষজনকে প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের হতে নিষেধ করছে প্রশাসন। এর মধ্যে স্কুল-কলেজ খুললে অনেক শিশু অসুস্থ হয়ে পড়তে পারে বলে মত সংগঠনটির।

এমন পরিস্থিতিতে দেশের সব স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসায় সাত দিনের জন্য শ্রেণি শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ রাখার দাবি জানায় তারা।

প্রসঙ্গত, দেশের প্রায় সব অঞ্চলেই তাপপ্রবাহ বইছে। এর মধ্যে ৯টি অঞ্চলে তীব্র তাপপ্রবাহ বইছে। যেসব অঞ্চলে তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৪০ ডিগ্রির ওপরে। একসঙ্গে এত অঞ্চলের তাপমাত্রা এত বেশি হওয়ার রেকর্ড বাংলাদেশে গত কয়েক বছরে উঠেছে কি না, তার সঠিক তথ্য এখনো বের করতে পারেনি আবহাওয়া অধিদপ্তর।

সংস্থাটি বলছে, আবহাওয়া এমন থাকতে পারে আগামী এক সপ্তাহ পর্যন্ত। এমনকি তাপমাত্রা ৪২ ডিগ্রি ছাড়াতে পারে বলেও শঙ্কা প্রকাশ করেছেন তারা। এদিকে দেশজুড়ে জারি হওয়া হিট অ্যালার্টও আগের মতোই বলবৎ আছে।

spot_img

সম্পর্কিত আরো খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ খবর