ঢাকা | রবিবার | ১৪ জুলাই ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৮:৫০ অপরাহ্ণ
জাতীয়এবারের নির্বাচন কেউ প্রশ্নবিদ্ধ করতে পারেনি: শেখ হাসিনা

এবারের নির্বাচন কেউ প্রশ্নবিদ্ধ করতে পারেনি: শেখ হাসিনা

spot_img

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেউ প্রশ্নবিদ্ধ করতে পারেনি বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) সকালে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, নির্বাচন যাতে প্রশ্নবিদ্ধ না হয়, তার জন্য নির্বাচন উন্মুক্ত করে দিয়েছিলাম। এই নির্বাচনকে কেউ প্রশ্নবিদ্ধ করতে পারেনি। যারা নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ বলছে, তাদের কাছে প্রশ্ন, কী কী কারণে অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচন হয়নি সেটা বলতে হবে।

তিনি বলেন, জাতির পিতার ডাকে সাড়া দিয়ে এ দেশের মানুষ অস্ত্র তুলে নিয়ে যুদ্ধ করেছিলেন। জাতির পিতাকে হত্যা করার পরে ২১ বছর ক্ষমতা জনগণের হাতে ছিল না। ক্ষমতা বন্দি ছিল ক্যান্টনমেন্টে। জনগণের কোনো অধিকার ছিল না। আওয়ামী লীগ ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিয়েছিল।

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, এবার একটা ভালো কাজ করেছে। সেটি কী- আগে বিএনপি চুপিসারে আগুন দিতো গাড়িতে, রেলে, সব জায়গায়। এবার তারা প্রকাশ্যে দিয়ে আবার ছবি তোলে। তাদের গুরু লন্ডন থেকে বলে দিয়েছে যে, ছবি পাঠাতে হবে। বলে দেওয়ায় সুবিধা হয়ে গেছে। তারা যে আগুন দিচ্ছে, সেই ছবি আর এভিডেন্সটা (প্রমাণ) পাওয়া যাচ্ছে, যে যে এলাকায় এই ঘটনাগুলো ঘটেছে, সেগুলো জোগাড় করে। এই মামলাগুলো যেন ঠিক মতো চলে এবং শাস্তিটা যেন পায়, তাদের নেতাই সে শাস্তির ব্যবস্থাট করে দিয়েছে। কাকে দোষ দেবে! নেতাকে খুশি করতে ছবি তুলেছে, পাঠিয়েছে। এখন ডিজিটাল সিস্টেমে যেভাবেই পাঠাক, সংগ্রহ করা কোনো কঠিন ব্যাপার না। সেভাবে অভিডেন্সগুলো এসেছে।

২০০১ সালের নির্বাচনের পর বিএনপির নির্যাতনের মামলা এখনও রয়ে গেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, কাজেই মামলাগুলো যাতে যথাযথভাবে হয়, সাক্ষী যেন হয় এবং এই দুষ্কৃতকারীরা যেন যথাযথ শাস্তি পায়, ভবিষ্যতে যেন আর আগুন না দেওয়া হয়, রাষ্ট্রীয় সম্পদ নষ্ট করার সাহস যেন না পায়, সেই ব্যবস্থাটাই আমাদের করতে হবে।

জঙ্গিবাদ, দুর্নীতির বিরুদ্ধে সবাইকে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, দুর্নীতির অর্থ কোনো ভালো কাজে লাগে না। বরং তাদের সন্তানরাই বিপদে পড়ে যাবে। এই বদনামটা যেন না হয়, সেদিকে দৃষ্টি দিতে হবে। একটা কথা মনে রাখবেন, নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন, কিছু ভোট তো পেয়েছেন। কেউ জয়ী হয়েছেন, কেউ জয়ী হতে পারেননি। কিন্তু কিছু ভোট তো পেয়েছেন! জনগণের আস্থা, বিশ্বাস যেন নষ্ট না হয়, সেটি মাথায় রেখে কাজ করতে হবে আর আমরা সেভাবেই কাজ করে মানুষের মন জয় করে গণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত রেখে উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবো। আমরা যেন পিছিয়ে না পড়ি, সেটি মাথায় রাখতে হবে। আপনারা সেভাবে কাজ করবেন, সেটিই চাই!

বিশেষ বর্ধিত সভায় শোকপ্রস্তাব পাঠ করেন দলের দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া। সভাটি সঞ্চালনা করেন দলের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ।

spot_img

সম্পর্কিত আরো খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ খবর