ঢাকা | মঙ্গলবার | ১৮ জুন ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৩:৫৪ অপরাহ্ণ
এক্সক্লুসিভইয়োলো জার্নালিজম বা হলুদ সাংবাদিকতা কি

ইয়োলো জার্নালিজম বা হলুদ সাংবাদিকতা কি

spot_img

কোন সাংবাদিকের লেখা কারাে পছন্দ না হলেই বলা হয় ইয়ােলাে জার্নালিজম বা হলুদ সাংবাদিকতা। কোন সাংবাদিক ঘুষ নিয়ে সংবাদ লিখলে সেই ব্যক্তিকে বলা হয় হলুদ সাংবাদিক। অর্থাৎ সাংবাদিকতা পেশাকে নিন্দা করার জন্য এই কথাটি ব্যবহার করা হয়।

আসলে কি হলুদ সাংবাদিকতা মানে খারাপ সাংবাদিকতা? ইয়ােলাে সাংবাদিকতার জন্ম দিয়েছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদপত্র জগতের দুই মহান ব্যক্তিত্ব নিউইয়র্ক জার্নালের প্রতিষ্ঠাতা রুডলফ হাস্ট ও নিউইয়র্ক ওয়ার্ল্ড-এর প্রতিষ্ঠাতা জোসেফ পুলিৎজার । হাস্ট ও পুলিজার প্রথমে একে অপরের সাংবাদিকদের বেশি বেতন দিয়ে টানাটানির প্রতিযােগিতা শুরু করেন। এরপর তারা চাঞ্চল্যকর সংবাদ প্রচারের প্রতিযােগিতা শুরু করেন যা সমকালীন রুচির সীমা ছাড়িয়ে যায় ।

নিউইয়র্ক ওয়ার্ল্ডে ইয়ােলাে কিড নামে কার্টুন বের হতাে। হাস্ট ওয়ার্ল্ড থেকে কার্টুনিস্ট রিচার্ড আউটকল্টকে ভাগিয়ে নিয়ে আসেন। অন্যদিকে পুলিজার আরেক কার্টুনিস্ট জর্জ লাক কে দিয়ে ইয়ােলাে কিড আঁকাতে থাকেন। ফলে দুথটি পত্রিকায় সমান তালে ইয়ােলাে কিড় আঁকা হতে থাকে । এই ইয়ােলাে কিছু কার্টুন থেকে ইয়ােলাে জার্নালিজম কথাটির শুরু ।

হাস্ট ও পুলিৎজার এমন প্রতিযােগিতা শুরু করেন যা যুক্তরাষ্ট্রকে চরম বিপর্যয়ের মুখে। ঠেলে দেয়। ১৮৯৬ সালে যুক্তরাষ্ট্রের একটি যুদ্ধজাহাজ হাভানার কাছে ডুবে যায় । হাস্ট্রের নিউইয়র্ক জানাল এজন্য স্পেনের ষড়যন্ত্রকে দায়ী করে সংবাদ ছাপে। ফলে যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেস অধিবেশনে স্পেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘােষণা করা হয় । জোসেফ পুলিৎজার সাংবাদিকতাকে নষ্ট করার জন্য দায়ী হলেও মৃত্যুর সময় তিনি উইল করে তার সব সম্পত্তি দান করেন সাংবাদিকতার কল্যাণে। তার নামেই প্রতিবছর বস্তুনিষ্ঠ ও অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার জন্য পুলিৎজার পদক দেয়া হয় যা সাংবাদিকতার নােবেল নামে পরিচিত ।

সূত্রঃ সাংবাদিক সুজন মেহেদীর লেখা থেকে সংগৃহীত

spot_img

সম্পর্কিত আরো খবর

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

সর্বশেষ খবর